হোম / ইসলাহী/আত্মশুদ্ধি

ইসলাহী/আত্মশুদ্ধি

সুস্থ্যতা ও অসুস্থ্যতাঃ দু’টাই নিয়ামত

মুফতী ইউসুফ লুধিয়ানবী রহঃ কখনো কখনো ছোট একটি ঘটনাও মানুষের জন্য উপদেশের অনেক বড় বার্তা নিয়ে আসে। আমার ব্যস্ততা কিংবা অলসতার দরুন বায়্যেনাত (মাসিক পত্রিকা) তৈরি হয়ে প্রেসে যেতে সবসময় দেরি হয়ে যায়। যিলকদ সংখ্যাটি প্রেসে গিয়েছে যিলকদের প্রথম দিকে। তাই এবার সঙ্গীদের বলেছিলাম, যিলহজ্ব সংখ্যাটিও যেন একসাথে আট-দশ দিনের …

আরো পড়ুন

এফ এম রেডিও এর ‘যাহা বলিবো সত্য বলিবো’ অনুষ্ঠানে স্বীয় পাপের বর্ণনা দেবার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: মো:হাশেম মিজি বিষয়ঃ রেডিও শোনা প্রশ্নঃ assalamualikum # আমার প্রশ্ন  হলো, রেডিওতে একটি চ্যানেল আছে সেখানে বলা হয় “””যাহা বলিবো সত্য বলিবো””””” তার মানে, কোন লোক খারাপ কাজ করে,  সেই খারাপ  কাজ সকল কে জানিয়ে দেওয়া যাতে করে কেউ আার খারাপ কাজ না করে। এই উদ্দেশ্যএ সকল বলা …

আরো পড়ুন

নাবালিকা অবস্থায় সমকামিতার মত কৃত পাপের শাস্তি হবে কি?

প্রশ্ন From: asma khatun বিষয়ঃ নাবালিকার পাপের শাস্তি প্রশ্নঃ আসসালামুআলাইকুম। কত বছর বয়স থেকে আদম সন্তানের পাপ লিপিবদ্ধ করা হয়? নাবালিকা অবস্হায় কোনো মেয়ে যদি অন্য আরেকটা নাবালিকা মেয়ের সাথে খেলার ছলে সমকামিতার মতো কিছু কয়েকবার করে থাকে এবং কোনো নাবালক ছেলের সাথে জিনার মতো কোনো পাপ করে থাকে তাহলে …

আরো পড়ুন

ডাক্তারের জন্য চলার পথে এক্সিডেন্টে পতিত আহত ব্যক্তির সেবা করার দায়িত্ব বর্তায় কি?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম। মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, আমি একজন ডাক্তার। মাঝে মাঝে রাস্তায় চলার সময় এক্সিডেন্ট হতে দেখি। তখন ডাক্তার হিসেবে আমার করণীয় কী? অন্যদের মত সেখান থেকে চলে যাওয়া নাকি আঘাতপ্রাপ্তদের চিকিৎসা ও সেবার ব্যবস্থা করা? শরীয়ত আমাকে উক্ত অবস্থায় কী করতে বলে? দয়া করে জানালে কৃতজ্ঞ …

আরো পড়ুন

মতপার্থক্য হলে তার সাথে কেমন আচরণ করা উচিত?

প্রশ্ন From: abu imad mohid bin meghu molla বিষয়ঃ ভাষার প্রয়োগ রীতি আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। মুহতারাম , যদি কারো সাথে মতের অমিল হয় বা কোন বিষয়ে মত পার্থক্য তাকে তবে তার সাথে কেমন ব্যবহার করতে হবে? তাকে কি আক্রমনাত্মক ভাষা ব্যাবহার করা যাবে ? শরীয়তের বিধান কি …

আরো পড়ুন

সেহরী না খেয়ে লাগাতার রোযা রাখার হুকুম কী?

প্রশ্ন একটানা না ভেঙ্গে ৩ দিন বা ৭ দিন রোজা রাখা যাবে কি ? যদি আমি রোজা রাখা শুরু করি রবিবার থেকে আর ইফতার করি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ; শারিয়াহর দৃষ্টিকোণ থেকে এটার বৈধতা আছে কি ? বিভিন্ন আওলিয়ার জীবনীতে এমন রোজার উল্লেখ পাওয়া যায়। এরকম রোজা রাখা কি হারাম নাকি …

আরো পড়ুন

দরুদ ও সালাম

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ দরুদ এবং সালামও এক প্রকার দুআ। আল্লাহ পাকের নিকট নবীজীর জন্য আমরা এ দুআ করে থাকি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। বস্তুত আমাদের উপর আল্লাহ তাআলার পরে নবীজীর অনুগ্রহ সবচে বড়। তিনি হাজারো বিপদ-মুসিবত অতিক্রম করে আমাদের পর্যন্ত দ্বীন পৌঁছিয়েছেন। যদি তিনি সীমাহীন ত্যাগ ও কোরবানী স্বীকার …

আরো পড়ুন

দ্বীনের খেদমত ও দাওয়াত

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ নিজে ঈমান আনা এবং শরীয়ত মতো চলা যেমন ফরজ, তেমনি যারা দ্বীন ও শরীয়ত সম্পর্কে অনবহিত, ঈমান ও তাকওয়ার আলোকিত পথের বিষয়ে যারা অনবগত, তাদেরকেও যথাসম্ভব দ্বীন সম্পর্কে অবগতি দান করা এবং সামর্থ অনুসারে দ্বীনের উপর চালানোর চেষ্টা করা সবার উপর ফরজ। আল্লাহ তাআলার নিকট তাবলীগ …

আরো পড়ুন

সবার জন্য পীরের কাছে বাইয়াত হওয়া কী জরুরী?

প্রশ্ন From: মোঃ তৌহিদুল  ইসলাম বিষয়ঃ বায়াত প্রশ্নঃ আমি একজন তিন চিল্লার সাথী। আমার জন্য কি কোন এক জন পীর বা আলেমের কাছে বায়াত হওয়া জরুরি? না হলে এতে কোন লোকসান আছে কি? আর হলে কোন লাভ আছে কি? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم হক্কানী পীর বা আলেমের কাছে বাইয়াত …

আরো পড়ুন

তওবা ও ইস্তিগফার

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ আল্লাহ তাআলা নবী পাঠিয়েছেন এবং কিতাব দান করেছেন যেন মানুষ যেন ভালোমন্দ বুঝতে পারে। সওয়াবের কাজ থেকে গোনাহের কাজকে পৃথক করে নিতে পারে। সৎ পথে চলে আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টি এবং অন্যায় পথ ত্যাগ করে পরকালের মুক্তি অর্জন করেতে পারে। তাই যারা নবী-রাসুলগণ এবং আল্লাহর কিতাবসমুহের উপর …

আরো পড়ুন