হোম / ইতিহাস ও ঐতিহ্য

ইতিহাস ও ঐতিহ্য

নামায কবে থেকে ফরজ হয়? নবীজী কত বছর নামায পড়েছেন?

প্রশ্ন From: Sultan Hazari মোবাইল/ইমেইলঃ sultanhazari@gmail.com বিষয়ঃ Huzur (saw) ar namaj হুজুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার জীবনে কত বছর কত মাস নামায পড়েছেন? মেরাজের আগে কি নামায পড়েছেন? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم নবুওয়াতপ্রাপ্তির পঞ্চম বছর মেরাজ হয়। মেরাজেই তিনি ফরজ নামাযের নির্দেশ পান। এর পর আমৃত্যু নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম …

আরো পড়ুন

রতন হিন্দী নামে ভারতীয় কোন সাহাবী ছিলেন?

আল্লামা আব্দুল মালেক দামাত বারাকাতুহু প্রশ্ন : ঢাকা থেকে প্রকাশিত একটি মাসিক পত্রিকায় কয়েক বছর আগে একটি প্রবন্ধ পড়েছিলাম। সেখানে রতন হিন্দিকে সাহাবী বলা হয়েছে এবং এ বিষয়ে সম্ভবত সায়্যিদ মানাযির আহসান গীলানী রাহ.-এর কোনো লেখার উদ্ধৃতিও দেওয়া হয়েছে। ইদানীং আরেকটি পত্রিকার বিশেষ সংখ্যায় (জুমাদাল উলা-জুমাদাল উখরা ১৪৩৯ হিজরী) এ …

আরো পড়ুন

কে ছিলেন মারিয়া কিবতিয়া রাঃ?

প্রশ্ন প্রশ্নকর্তা-মঞ্জুরুল হাসান, ইন্ডিয়া। আসসালামু আলাইকুম। আমার প্রশ্ন হচ্ছে, মারিয়া কিবতিয়া কে ছিলেন? নবী পাকের সাথে কিসের সম্পর্ক? ইউকিপিডিয়াতে লেখা আছে, নবী পাকের সাথে বিয়ে হয়নি। যদি হয়ে থাকে, তাহলে নবী পাকের ওয়াইফদের তালিকায় তার নাম নেই কেন? আর ইউকিপিডিয়াতে যে ভুল লেখা হয়েছে তার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না কেন? …

আরো পড়ুন

যার হাতে প্রতিষ্ঠা পেল শিয়া মতবাদ

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, আমরা অনেকেই শিয়া মতবাদ সম্পর্কে জানি না। শিয়া মতবাদ কার মাধ্যমে উৎপত্তি হয়েছে। কিভাবে এ মতবাদ ছড়িয়ে পড়ল। এ বিষয়ে কিছু জানালে উপকৃত হতাম। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم ইয়াহুদ। ইসলাম ও  মুসলমানদের চির দুশমন। মদীনায় ছিল তাদের ব্যাপক প্রভাব। অসংখ্য উলামা ছিল …

আরো পড়ুন

নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কী জানাযা নামায পড়া হয়নি?

প্রশ্ন From: তরিকুল ইসলাম বিষয়ঃ রাসুল স. এর জানাযা রাসুল স. এর জানাযাতে ইমাম কে ছিল? শুনেছি কোন ইমাম ছিল না ,জামাতে জানাযা হয় নি, যার যার মত জানাযা পরেছে কারণ কি ? বিস্তারিত জানালে উপকৃত হতাম। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم আপনার জানা কথাটি সম্পূর্ণই ভুল। নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর …

আরো পড়ুন

সকল ফকীহরই নির্ভরতা ছিল সহীহ হাদীসের উপর

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- ইমাম আবু হানীফা ছিলেন যুগের সবচেয়ে বড় মুজতাহিদ ও ফকীহ প্রসিদ্ধ চার ইমামসহ সকল মুজতাহিদ ফকীহই নির্ভর করেছেন সহীহ হাদীসের উপর। কারণ তাদের সকলের ঐকান্তিক চেষ্টা ছিল রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বাণী ও কর্ম সঠিকভাবে ধরতে পারা। ফলে এ ক্ষেত্রে সহীহ হাদীসের …

আরো পড়ুন

ইমাম আবু হানীফা ছিলেন যুগের সবচেয়ে বড় মুজতাহিদ ও ফকীহ

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- হাদীসের হাফেজগণও ফকীহগণের মুখাপেক্ষী ছিলেন : এই এগার নম্বর ঘটনা ও নয় নম্বরে উল্লেখিত ইবনে মাঈনের বক্তব্য থেকেও বোঝা যায়, ইমাম আবু হানীফা ছিলেন তাঁর যুগের সবচেয়ে বড় মুজতাহিদ ও ফকীহ। ইমাম শাফেয়ীর একথা তো খুবই প্রসিদ্ধ যে, الناس في الفقه عيال على …

আরো পড়ুন

হাদীসের হাফেজগণও ফকীহগণের মুখাপেক্ষী ছিলেন :

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- মুহাদ্দিসগণও ফকীহগণের কদর বুঝতেন শুধু হাদীস জানা ফকীহগণের প্রয়োজন ও মুখাপেক্ষিতা মেটাতে ও দূর করতে পারে না। এই কারণে বড় বড় হাফেজে হাদীসগণ শুধু ফকীহগণের কদরই করেন নি, তাদের কাছ থেকে ফিকহের ইলম অর্জন করেছেন, কিংবা তাদের রচিত বইপুস্তক গভীর ভাবে অধ্যয়ন করেছেন। কিংবা …

আরো পড়ুন

হযরত ইবরাহীম আলাইহিস সালাম কী হজ্ব করেছেন?

প্রশ্ন হযরত ইবরাহীম আলাইহিস সালাম কী হজ্জ করেছেন? প্রমাণসহ জানালে উপকৃত হবো। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم ইবরাহীম আলাইহিস সালাম বাইতুল্লাহ নির্মাণের পর থেকেই হজ্ব এর বিধান শুরু হয়। নির্মাণের পর তিনি হজ্ব করেছেন মর্মে কুরআন ও হাদীসে বর্ণিত হয়েছে। আর উম্মতে মুহাম্মদীর উপর আলাদাভাবে আবার তা ফরজ করা হয় …

আরো পড়ুন

আহলে হাদীস মতাদর্শীরা বাইতুল্লাহ থেকে চার জামাত দূর করেছে একদিন বিশ রাকাত তারাবীও দূর করবে?

প্রশ্ন নামঃ হুমায়ুন কবীর দেশঃ বাংলাদেশ আসসালামু আলাইকুম। আমার কয়েকটি প্রশ্ন আছে। আমাদের দেশে আহলে হাদিস, লা-মাজহাবীরা বলে বেড়ায় যে, একসময় (প্রায় কয়েকশত বছর ধরে) মসজিদুল হারামে চার মাজহাবের কারনে চার জামাতে নামাজ পড়ানো হতো। এখন নাকি লা-মাজহাবি, সালাফিরাই চার জামাত ভেঙ্গে এক জামাতে নামাজ পড়ার রীতি চালু করেছে। তাদের …

আরো পড়ুন

কুরআন সংরক্ষণে রব্বে কারীমের বিস্ময়কর ব্যবস্থা

মাওলানা হুযায়ফা আল্লাহ রাব্বুল আলামীন ইরশাদ করেছেন, إِنَّا نَحْنُ نَزَّلْنَا الذِّكْرَ وَإِنَّا لَهُ لَحَافِظُونَ ‘নিশ্চয় আমিই কুরআন নাজিল করেছি আর আমিই তা হেফাজত করব।’ (সূরা হিজর) এটাই একমাত্র আসমানী কিতাব যার হেফাজতের দায়িত্ব আল্লাহ তাআলা নিজে গ্রহণ করেছেন। এটা আসমানী ওয়াদা। আর কুরআনের ঘোষণা হল, إِنَّ اللَّهَ لَا يُخْلِفُ الْمِيعَادَ …

আরো পড়ুন