হোম / অপরাধ ও গোনাহ / সুদী ঋণ নিয়ে বিল্ডিং বানালে করণীয় কী?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

সুদী ঋণ নিয়ে বিল্ডিং বানালে করণীয় কী?

প্রশ্ন

আসসালামুআলাইকুম। আমার একটা প্রশ্ন জিজ্ঞাসা ছিলো। তো আমার প্রশ্নটা করছি।
প্রশ্নঃ ব্যাংক থেকে সুদের উপর লোন বা ঋণ নেয়া হারাম এটা আমরা কমবেশি সবাই জানি। এখন কেউ যদি অজ্ঞতা বশত ঋণ নিয়ে ফেলে এবং সেই ঋণের টাকা দিয়ে ৫ তালা বাড়ি বানিয়ে ফেলে, তারপর আল্লাহ্‌ তায়ালার কাছে খাসনিয়তে তওবা করে অনুতপ্ত হয়,তাহলে কি বাড়িটি হারাম হবে??? যদি হারাম হয় তাইলে হালাল করার উপায় কি???? নাকি বাড়িটি ভেঙে ফেলতে হবে???? আর বাড়ি যদি ভাঙা সম্ভব না হয় তাইলে কি করতে হবে???? আর একটা কথা বাড়ির পুরো টাকা ঋণের না,কিছু অংশ ঋণের টাকার। অতি সত্ত্বর উত্তরটা জানালে উপকৃত হোতাম।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

যেহেতু সুদী ভিত্তিতে ঋণ গ্রহণ করেছে। সুদ গ্রহণ করেনি। তাই আল্লাহর কাছে খাস দিলে তওবা করলেই আশা করি মহামহীম ক্ষমা করবেন।

ভবিষ্যতে সুদ থেকে মুক্ত থাকার দৃঢ় সংকল্প থাকতে হবে।

عبد الله بن مسعود عن أبيه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال لعن الله آكل الربا وموكله وشاهديه وكاتبه

হযরত আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ রাঃ এর পিতা থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেন-“যে সুদ খায়, যে সুদ খাওয়ায়, তার সাক্ষী যে হয়, আর দলিল যে লিখে তাদের সকলেরই উপর আল্লাহ তায়ালা অভিশাপ করেছেন। (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং-৩৮০৯, মুসনাদে আবি ইয়ালা, হাদিস নং-৪৯৮১)

إِنَّمَا التَّوْبَةُ عَلَى اللَّهِ لِلَّذِينَ يَعْمَلُونَ السُّوءَ بِجَهَالَةٍ ثُمَّ يَتُوبُونَ مِنْ قَرِيبٍ فَأُولَٰئِكَ يَتُوبُ اللَّهُ عَلَيْهِمْ ۗ وَكَانَ اللَّهُ عَلِيمًا حَكِيمًا [٤:١٧] وَلَيْسَتِ التَّوْبَةُ لِلَّذِينَ يَعْمَلُونَ السَّيِّئَاتِ حَتَّىٰ إِذَا حَضَرَ أَحَدَهُمُ الْمَوْتُ قَالَ إِنِّي تُبْتُ الْآنَ وَلَا الَّذِينَ يَمُوتُونَ وَهُمْ كُفَّارٌ ۚ أُولَٰئِكَ أَعْتَدْنَا لَهُمْ عَذَابًا أَلِيمًا [٤:١٨

অবশ্যই আল্লাহ তাদের তওবা কবুল করবেন,যারা ভূলবশতঃ মন্দ কাজ করে,অতঃপর অনতিবিলম্বে তওবা করে; এরাই হল সেসব লোক যাদেরকে আল্লাহ ক্ষমা করে দেন। আল্লাহ মহাজ্ঞানী,রহস্যবিদ। আর এমন লোকদের জন্য কোন ক্ষমা নেই, যারা মন্দ কাজ করতেই থাকে,এমন কি যখন তাদের কারো মাথার উপর মৃত্যু উপস্থিত হয়,তখন বলতে থাকেঃ আমি এখন তওবা করছি। আর তওবা নেই তাদের জন্য, যারা কুফরী অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে। আমি তাদের জন্য যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি প্রস্তুত করে রেখেছি। {সূরা নিসা-১৭-১৮}

وَإِنِّي لَغَفَّارٌ لِّمَن تَابَ وَآمَنَ وَعَمِلَ صَالِحًا ثُمَّ اهْتَدَىٰ [٢٠:٨٢]

আর যে তওবা করে,ঈমান আনে এবং সৎকর্ম করে অতঃপর সৎপথে অটল থাকে,আমি তার প্রতি অবশ্যই ক্ষমাশীল। [সূরা ত্বহা-৮২]

وَتُوبُوا إِلَى اللَّهِ جَمِيعًا أَيُّهَ الْمُؤْمِنُونَ لَعَلَّكُمْ تُفْلِحُونَ [٢٤:٣١]

মুমিনগণ,তোমরা সবাই আল্লাহর সামনে তওবা কর,যাতে তোমরা সফলকাম হও। [সূরা নূর-৩১]

হযরত উবাদা বিন আব্দুল্লাহ তার পিতা থেকে বর্ণনা করেন,রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেনঃ

التَّائِبُ مِنَ الذَّنْبِ، كَمَنْ لَا ذَنْبَ لَهُ

গোনাহ থেকে তওবাকারী এমন,যেন সে গোনাহ করেইনি। [সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস নং-৪২৫০]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা-জামিয়া ফারুকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

মাটির ঢিলা শুকিয়ে যাবার পর দ্বিতীয়বার ইস্তিঞ্জা করা যাবে?

প্রশ্ন মাটির ঢিলা দিয়ে ইস্তিঞ্জা করার পর উক্ত ঢিলা যদি শুকিয়ে যায়। তাহলে উক্ত ঢিলা …