হোম / তালাক/ডিভোর্স / ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির স্ত্রী কি অন্যত্র বিয়ে করতে পারবে?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির স্ত্রী কি অন্যত্র বিয়ে করতে পারবে?

প্রশ্ন

একজন মহিলা জানতে চেয়েছেন,তার স্বামী জেলে ফাঁসির রায় হয়েছে।

তার ৩ ছেলে মেয়ে। তিনি ছেলে মেয়ে নিয়ে কষ্টে আছেন। এখন তিনি কি আবার বিয়ে করতে পারবেন অন্য কাউকে?

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

স্বামীর ফাঁসি কার্যকর হবার পর, চার মাস দশ দিন পর উক্ত মহিলা অন্য কোন পুরুষকে বিয়ে করতে পারবেন।

এছাড়া স্বামী যদি স্ত্রীকে তালাক দিয়ে দেন। বা স্বামী কর্তৃকপ্রাপ্ত অধিকার বলে স্ত্রী নিজের উপর তালাক পতিত করে নেয়, তাহলে ফাঁসি হবার আগেই যদি তার ইদ্দত তথা তিন হায়েজ সমাপ্ত হয়ে যায়, তাহলেও উক্ত মহিলা অন্যত্র বিয়ে করতে পারবে।

মৃত্যু বা তালাকপ্রাপ্তা হওয়া উভয় অবস্থায় ইদ্দত পালন শেষেই কেবল অন্যত্র বিয়ে করতে পারবে। ইদ্দত শেষ হবার আগে বিয়ে করা যাবে না।

وَالَّذِينَ يُتَوَفَّوْنَ مِنكُمْ وَيَذَرُونَ أَزْوَاجًا يَتَرَبَّصْنَ بِأَنفُسِهِنَّ أَرْبَعَةَ أَشْهُرٍ وَعَشْرًا ۖ فَإِذَا بَلَغْنَ أَجَلَهُنَّ فَلَا جُنَاحَ عَلَيْكُمْ فِيمَا فَعَلْنَ فِي أَنفُسِهِنَّ بِالْمَعْرُوفِ ۗ وَاللَّهُ بِمَا تَعْمَلُونَ خَبِيرٌ [٢:٢٣٤]

আর তোমাদের মধ্যে যারা মৃত্যুবরণ করবে এবং নিজেদের স্ত্রীদেরকে ছেড়ে যাবে, তখন সে স্ত্রীদের কর্তব্য হলো নিজেকে চার মাস দশ দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করিয়ে রাখা। তারপর যখন ইদ্দত পূর্ণ করে নেবে, তখন নিজের ব্যাপারে নীতি সঙ্গত ব্যবস্থা নিলে কোন পাপ নেই। আর তোমাদের যাবতীয় কাজের ব্যাপারেই আল্লাহর অবগতি রয়েছে। [সূরা বাকারা-২৩৪]

وَالْمُطَلَّقَاتُ يَتَرَبَّصْنَ بِأَنفُسِهِنَّ ثَلَاثَةَ قُرُوءٍ ۚ [٢:٢٢٨

আর তালাকপ্রাপ্তা নারী নিজেকে অপেক্ষায় রাখবে তিন হায়েয পর্যন্ত। [সূরা বাকারা-২২৮]

وَلَا تَعْزِمُوا عُقْدَةَ النِّكَاحِ حَتَّىٰ يَبْلُغَ الْكِتَابُ أَجَلَهُ ۚ وَاعْلَمُوا أَنَّ اللَّهَ يَعْلَمُ مَا فِي أَنفُسِكُمْ فَاحْذَرُوهُ ۚ وَاعْلَمُوا أَنَّ اللَّهَ غَفُورٌ حَلِيمٌ [٢:٢٣٥]

আর নির্ধারিত ইদ্দত সমাপ্তি পর্যায়ে না যাওয়া অবধি বিয়ে করার কোন ইচ্ছা করো না। আর একথা জেনে রেখো যে, তোমাদের মনে যে কথা রয়েছে, আল্লাহর তা জানা আছে। কাজেই তাঁকে ভয় করতে থাক। আর জেনে রেখো যে, আল্লাহ ক্ষমাকারী ও ধৈর্য্যশীল। [সূরা বাকারা-২৩৫]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা-জামিয়া ফারুকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

নামাযরত অবস্থায় শিশু মায়ের স্তন থেকে দুধ পান করে ফেললে নামাযের হুকুম কী?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম। মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, মহিলা নামায পড়ছে। তাশাহুদে বসার সময় …