হোম / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / স্বামীর পশু কুরবানী করার দ্বারা স্ত্রীর কুরবানী আদায় হয়ে যায়?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

স্বামীর পশু কুরবানী করার দ্বারা স্ত্রীর কুরবানী আদায় হয়ে যায়?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম।

আমি কোরবানী দিব ইনশাআল্লাহ। আমার স্ত্রীর নিজস্ব আয় রয়েছে (ব্যাংক ডিপিএসসহ) এবং তা নেসাব পরিমাণ। এমতাবস্থায়, তার প্রতিও কি আলাদাভাবে কোরবানী ওয়াজিব? না কি সংসারের কর্তা হিসেবে শুধু আমি দিলেই চলবে?

রফিউজ্জামান

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

কুরবানী একটি ইবাদত। ইবাদত প্রতিটি ব্যক্তির উপর আলাদা আবশ্যক হয়। সাধারণতঃ এক জনের ইবাদত আরেক জন আদায় করলে আদায় হয় না।

যেমন পরিবারের কর্তার নামায আদায় বাকি সদস্যদের নামায আদায় বলে ধর্তব্য হয় না। তেমনি পরিবারের  একজনের রোযা রাখার দ্বারা বাকিদের পক্ষ থেকে তা মাফ হয়ে যায় না। বরং পরিবারের সকল প্রাপ্ত বয়স্কদের উপরই আলাদাভাবে নামায ও রোযা রাখা আবশ্যক।

তেমনি কুরবানী একটি স্বতন্ত্র ইবাদত। স্বতন্ত্রভাবে প্রতি ব্যক্তির উপর আবশ্যক হয়। তাই পরিবারের একজনের কুরবানী করার দ্বারা বাকিদের উপর থেকে তা মাফ হয়ে যাবে না। বরং নিসাব পরিমাণ মালের মালিক সকলের উপর আলাদা আলাদা কুরবানী করা আবশ্যক।

সেই হিসেবে আপনার কুরবানী আদায় করার দ্বারা আপনার স্ত্রীর কুরবানী আদায় হবে না। তাই তার আলাদা কুরবানী করা আবশ্যক।

أَلَّا تَزِرُ وَازِرَةٌ وِزْرَ أُخْرَىٰ [٥٣:٣٨

কোন ব্যক্তি কারও বোঝা নিজে বহন করবে না। [সূরা নাজম-৩৮}

الأضحية واجبة على كل حر مسلم مقيم موسر فى يوم الأضحى عن نفسه (الهداية-4/443)

وفى اجناس الناطفى:قال أبو حنيفة رحمه الله تعالى: الموسر الذى له مائتا درهم أوعرض يساوى مائتى درهم سوى المسكن الخادم والثياب التى يلبس، ومتاع البيت الذى يحتاج إليه (خلاصة الفتاوى، الفصل الثانى نصاب الأضحية-4/309)

(وأما) (شرائط الوجوب) : منها اليسار وهو ما يتعلق به وجوب صدقة الفطر دون ما يتعلق به وجوب الزكاة، ……….. والموسر في ظاهر الرواية من له مائتا درهم أو عشرون دينارا أو شيء يبلغ ذلك سوى مسكنه ومتاع مسكنه ومركوبه وخادمه في حاجته التي لا يستغني عنها، (كتاب الاضحية، الباب الأول فى تفسير الأضحية وركنها وفتها-5/292، البحر الرائق-9/318

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা-জামিয়া ফারুকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

নিয়ত ছাড়া তালাক এবং মনে মনে তালাক দেবার হুকুম কী?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম হুজুর। আমি একটা সমস্যায় আছি। দয়া করে আমার প্রশ্ন গুলির উত্তর দিলে …