হোম / প্রশ্নোত্তর / জনহিতকর কাজে যাকাতের টাকা ব্যয় করা যাবে কি?

জনহিতকর কাজে যাকাতের টাকা ব্যয় করা যাবে কি?

প্রশ্ন

Dear Farazi Bhai,

Assalamu Alaikum. I have been following your enlightening website www.ahlehaqmedia.com from where I have learnt a great deal about Zakat. I work in an NGO and we provide healthcare, education and other services to the poorest communities in the Chars of Brahmaputra. We are able to provide these services for completely free to the beneficiaries as we are collecting donations from various sources. This year we are planning to collect Zakat fund to continue providing free healthcare and education to the poor communities. Based on my learning, I have prepared a draft guideline for our organization on how shall we manage such fund. I would sincerely appreciate if you kindly share your expert thoughts and guide us in case we misunderstood or overlooked any critical issue.

I sincerely thank you for your kind advice and guidance. Thank you.

With best regards,

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

সুদসহ হারাম অন্যান্য শরীয়ত গর্হিত বিষয় থেকে মুক্ত হলে আপনাদের কাজগুলি খুবই মহৎ ও পূণ্যের।

আল্লাহ তাআলা আখেরাতে উত্তম প্রতিদান পাবার নিয়তের সাথে উপরোক্ত মহৎ কাজগুলো আপনাদের আঞ্জাম দেবার তৌফিক দান করুন।

উক্ত জনহিতকর কাজগুলোও খুবই সওয়াবের। কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু এসব কাজে যাকাতের টাকা সরাসরি ব্যবহার করাটা কিছুটা জটিল।

যাকাত আদায়ের জন্য একটি আবশ্যকীয় শর্ত হল উক্ত টাকা বা সম্পদের মালিক গরীবকে বানিয়ে দিতে হবে।

অন্যথায় যাকাত আদায় হবে না।

আপনাদের সেবা কার্যক্রমের মাঝে দু’টি বিষয়ের কথা উল্লেখ করেছেন। যথা-

১-স্বাস্থ্যসেবা।

২-শিক্ষাদান।

উপরোক্ত দু’টি কার্যক্রমের মাঝে সাধারণতঃ যাকাতের সম্পদের সরাসরি মালিকানা গরীবকে দেয়া সম্ভব নয়। সেবা দেয়া সম্ভব।

কারণ, যাকাতের টাকা দিয়ে যদি স্কুল খোলা, শিক্ষকের বেতন দেয়া,হাসপাতাল করা,নার্স বা ডাক্তারের ফিস দেয়া, যাতায়াত ভাড়া ইত্যাদি করা হয়, তাহলে এর দ্বারা যাকাতের টাকার প্রকৃত মালিকানা গরীবকে দেয়া হচ্ছে না। বরং টাকাগুলো দিয়ে তাদের সেবা হচ্ছে। মালিকানা তাদের হয়নি।

এ কারণে উপরোক্ত খাতে যাকাতের টাকা ব্যয় করলে যাকাত আদায় হবে না।

হ্যাঁ, যদি যাকাতের টাকা সংগ্রহ করে, তা আলাদা করে রাখা হয়, তারপর সেই টাকাগুলো সরাসরি গরীবদের প্রদান করা হয়, দেবার পর তাদের উপরোক্ত খাতগুলোতে ব্যয় করতে উদ্ধুদ্ধ করা হয়,তাহলে যাকাত আদায় হয়ে যাবে।

وَيُشْتَرَطُ أَنْ يَكُونَ الصَّرْفُ (تَمْلِيكًا) لَا إبَاحَةً كَمَا مَرَّ (لَا) يُصْرَفُ (إلَى بِنَاءِ) نَحْوِ (مَسْجِدٍ وَ) (الى قوله) وقدمنا ان الحيلة ان يتصدق على الفقير ثم يأمره بفعل هذه الأشياء وهل له يخالف امره؟ لم أره والظاهر نعم، لأنه مقتضى صحة التمليك، (رد المحتار، كتاب الزكاة، باب المصرف-3/291-94)

(قَوْلُهُ: تَمْلِيكًا) فَلَا يَكْفِي فِيهَا الْإِطْعَامُ إلَّا بِطَرِيقِ التَّمْلِيكِ وَلَوْ أَطْعَمَهُ عِنْدَهُ نَاوِيًا الزَّكَاةَ لَا تَكْفِي (رد المحتار، كتاب الزكاة، باب المصرف-3/291)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

         

Print Friendly, PDF & Email

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

হজ্বের ইহরাম বাঁধা অবস্থায় গোসল করলে হুকুম কী?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম। হযরত আমার প্রশ্ন: উমরার নিয়তে ইহরাম পড়া অবস্থায় গোসল করে কাপড় পরিবর্তন …