হোম / অপরাধ ও গোনাহ / স্বামী স্ত্রীর পরস্পর লজ্জাস্থানে মুখ দেবার হুকুম কী?

স্বামী স্ত্রীর পরস্পর লজ্জাস্থানে মুখ দেবার হুকুম কী?

প্রশ্ন

From: আমির খান

বিষয়ঃ স্বামী-স্ত্রী

১। স্বামী কি তার বিবাহিত নিজ স্ত্রীর লজ্জাস্থান (যৌনাঙ্গ) স্তনের মত চুষতে বা চাটতে পারবে ? যেহেতু এই কাজটা ও স্ত্রীকে প্রচুর আনন্দিত করে !!! তাছাড়া এই অঙ্গটা ও শরীরের অন্য অঙ্গের মত অঙ্গ !!!

২। স্ত্রী কি তার বিবাহিত স্বামীর লজ্জাস্থান (পুরুষাঙ্গ) চুষতে পারবে ?

বিঃ দ্রঃ (দয়া করে ২ টি প্রশ্নের উত্তরই দলীল সহকারে বিস্তারিত জানানোর জন্য আবেদন।)

উত্তর:

بسم الله الرحمن الرحيم

স্বামীর জন্য তার স্ত্রীর বা স্ত্রীর জন্য তার স্বামীর লজ্জাস্থানে মুখ দেয়া মাকরূহ । তবে হাত দিয়ে স্পর্শ করাতে সমস্যা নেই। কারণ এ মুখ দিয়ে কুরআন তিলাওয়াত করা হয়, আল্লাহর নাম নেয়া হয়। তাই জিহবাকে নাপাক স্থান থেকে মুক্ত রাখা উচিত।

অঙ্গ হলেই  হুকুম এক হয়ে যায় না।

  وفي المحيط البرهاني : إذَا أَدْخَلَ الرَّجُلُ ذَكَرَهُ فِي فَمِ امْرَأَتِهِ قَدْ قِيلَ يُكْرَهُ لانه موضع قراءة القرآن ‘ فلا يليق به ادخال الذكر فيه ‘ و فيه قيل بخلاف ايضا ‘( المحيط البرهاني : كتاب الاستحسان و الكراهية : في المتفرقات 8/134

في الهندية: فِي النَّوَازِلِ إذَا أَدْخَلَ الرَّجُلُ ذَكَرَهُ فِي فَمِ امْرَأَتِهِ قَدْ قِيلَ يُكْرَهُ وَقَدْ قِيلَ بِخِلَافِهِ كَذَا فِي الذَّخِيرَةِ. (الفتاوي الهندية ‘ كتاب الكراهية:الْبَابُ الثَّلَاثُونَ فِي الْمُتَفَرِّقَاتِ 5/372ٍ  احسن الفتاوي 8/45)

و في البحر اللرائق : عن ابي يوسف” سألت الامام الاعظم  عن الرجل يمس فرج امته او هي تمس فرجه ليحرك آلته اليس بذلك بأس ؟ قال: ارجو ان يعظم الأجر ”  (البحر اللرائق 8/354)

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

আফজাল হুসাইন ফারুকী

শিক্ষক: তালীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

সত্যায়নে

মুফতি লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক: তালীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

তারাবীহ সালাতের চার রাকাত পর বসে প্রচলিত “সুবহানা জিলমুলুকি ওয়ালমালাকুতু” যে দুআ পড়া হয় এর কোন ভিত্তি আছে কি?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারকাতুহ। ১) তারাবীহ নামাজের চার রাকাত পর পর কোন দোয়া পড়া …