হোম / আধুনিক মাসায়েল / প্রচলিত হুন্ডি ব্যবসার শরয়ী বিধান কী?

প্রচলিত হুন্ডি ব্যবসার শরয়ী বিধান কী?

প্রশ্ন

প্রচলিত হুন্ডি ব্যবসার শরয়ী হুকুম কী? এক দেশ বা এলাকা থেকে অন্য এলাকায় টাকা পাঠাতে কিছু টাকা অতিরিক্ত দিয়ে কাউকে দায়িত্ব দেয়া। যিনি তার প্রতিনিধির মাধ্যমে কাংখিত স্থানে টাকা পাঠিয়ে দেন। এভাবে লেনদেন করার হুকুম কী?

যেমন সৌদী থেকে এক লাখ টাকা বাংলাদেশে পাঠাতে চাচ্ছে। তখন বাংলাদেশী টাকায় এক লাখ টাকা হবে এই পরিমাণ সৌদী রিয়াল সৌদীতে থাকা হুন্ডি ব্যবসায়ীর কাছে প্রদান করা হল। তারপর উক্ত হুন্ডি ব্যবসায়ী বাংলাদেশে থাকা তার প্রতিনিধির মাধ্যমে উক্ত টাকা গ্রাহকের কাংখিত ব্যক্তির কাছে হস্তান্তর করল।

এই সেবা প্রদানের জন্য সৌদীতে থাকা হুন্ডি ব্যবসায়ী পাঠানো টাকার অতিরিক্ত কিছু টাকা গ্রহণ করে থাকে।

আমার প্রশ্ন হল, এভাবে হুন্ডির মাধ্যমে টাকা উপার্জন করা বৈধ কি?

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

এভাবে হুন্ডি ব্যবসা করা ইসলামী শরীয়ত মুতাবিক বৈধ হবে। [কিতাবুন নাওয়াজেল-১২/৪০৭]

তবে যেহেতু রাষ্ট্রীয় আইনে তা নিষিদ্ধ। তাই এ থেকে বিরত থাকাই উচিত। যদি নিরাপত্তার সাথে লেনদেন করা যায়, তাহলে শরয়ী কোন বিধিনিষেধ নেই।

إن معظم الأوراق المالية التى يتعامل بها الناس اليوم حكم التعامل بها حكم الحوالة، (تكملة فتح الملهم-1/514)

وَكَرِهْت السَّفْتَجَةُ) بِضَمِّ السِّينِ وَتُفْتَحُ وَفَتْحِ التَّاءِ، وَهِيَ إقْرَاضٌ لِسُقُوطِ خَطَرِ الطَّرِيقِ،

وفى رد المحتار: وَصُورَتُهَا أَنْ يَدْفَعَ إلَى تَاجِرٍ مَالًا قَرْضًا لِيَدْفَعَهُ إلَى صَدِيقِهِ، وَإِنَّمَا يَدْفَعُهُ قَرْضًا لَا أَمَانَةً لِيَسْتَفِيدَ بِهِ سُقُوطَ خَطَرِ الطَّرِيقِ (الدر المختار مع الشامى، كتاب الحوالة، مطلب فى المسفتجة وهى البوليصة-8/17)

لان طاعة الإمام فيما ليس بمعصية فرض، (الدر المختار مع الشامى-6/416)

وفى الشامية: طاعة الإمام فيما ليس بمعصة واجبة، (رد المحتار-3/53)

وَلَا تُلْقُوا بِأَيْدِيكُمْ إِلَى التَّهْلُكَةِ ۛ [٢:١٩٥

আর ব্যয় কর আল্লাহর পথে,তবে নিজের জীবনকে ধ্বংসের সম্মুখীন করো না। [সূরা বাকারা-১৯৫]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

তালাকের আবেদনের প্রেক্ষিতে “আরেকবার বললে যা বলছো তা’ই হবে” বলার দ্বারা তালাক হয় কি?

প্রশ্ন বরাবর, মুহতামিম সাহেব, আসসালামু আলাইকুম। সম্মনিত মুফতি সাহেব। যদি স্বামী স্ত্রী ঝগড়ার এক পর্যায়ে …