হোম / দুআ-দরূদ ও অজীফা / দুআয় জান্নাত পাওয়া যাবে কী?

দুআয় জান্নাত পাওয়া যাবে কী?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম।
হযরত আমার ছোট একটা প্রশ্ন।

কারো দোয়ায় কি কেউ জান্নাত পেতে পারে। এ বিষয়ে কি কোন হাদিস আছে। দলিলসহ জানালে উপকৃত হব।
প্রশ্নকারী :মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

দুআ একটি উত্তম ইবাদত। দুআ একমাত্র ইবাদত যা মানুষের ঝুলন্ত তাকদীরকে পাল্টে দিতে পারে।

সুতরাং কোন মুসলমানের জান্নাতী হবার দুআ করা হলে, উক্ত দুআ কবুল হলে অবশ্যই এর দ্বারা যার জন্য দুআ করা হল, সে ব্যক্তি জান্নাতী হবে।

وَقَالَ رَبُّكُمُ ادْعُونِي أَسْتَجِبْ لَكُمْ

তোমাদের পালনকর্তা বলেন, তোমরা আমার নিকট দুআ কর, আমি তোমাদের দুআ কবুল করবো। [সূরা গাফির-৬০]

أَنَّ عُبَادَةَ بْنَ الصَّامِتِ، حَدَّثَهُمْ، أَنَّ رَسُولَ اللهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ: مَا عَلَى الأَرْضِ مُسْلِمٌ يَدْعُو اللَّهَ بِدَعْوَةٍ إِلاَّ آتَاهُ اللَّهُ إِيَّاهَا أَوْ صَرَفَ عَنْهُ مِنَ السُّوءِ مِثْلَهَا مَا لَمْ يَدْعُ بِإِثْمٍ أَوْ قَطِيعَةِ رَحِمٍ، فَقَالَ رَجُلٌ مِنَ القَوْمِ: إِذًا نُكْثِرُ، قَالَ: اللَّهُ أَكْثَرُ.

হযরত উবাদাহ বিন সামিত রাঃ বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, পৃথিবীর যে কোন মুসলমান আল্লাহ তাআলা কাছে কোন দুআ করলে আল্লাহ তাকে তা দান করেন এবং তার থেকে অনুরূপ অকল্যাণকে হটিয়ে দেন, যতক্ষঞণ যেস কোন গোনাহের বিষয়ে বা আত্মীয়তা ছিন্নকরণের বিষয়ে দুআ না করে। তখন উপস্থিত লোকদের মধ্য একজন বললেন, তাহলেতো আমরা খুব বেশি দুআ করবো। নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, আল্লাহও খুব দানকারী। [জামে তিরমিজী, হাদীস নং-৩৫৭৩]

عَنْ سَلْمَانَ قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: لاَ يَرُدُّ القَضَاءَ إِلاَّ الدُّعَاءُ، وَلاَ يَزِيدُ فِي العُمْرِ إِلاَّ البِرُّ.

হযরত সালমান রাঃ থেকে বর্ণিত। কেবল দুআই খোদায়ী ফায়সালা পরিবর্তন করাতে পারে। আর নেক কাজই বয়সের বরকত বৃদ্ধি করাতে পারে। [তিরমিজী, হাদীস নং-২১৩৯]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

তারাবীহ সালাতের চার রাকাত পর বসে প্রচলিত “সুবহানা জিলমুলুকি ওয়ালমালাকুতু” যে দুআ পড়া হয় এর কোন ভিত্তি আছে কি?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারকাতুহ। ১) তারাবীহ নামাজের চার রাকাত পর পর কোন দোয়া পড়া …