হোম / প্রশ্নোত্তর / প্রথম সন্তান হওয়ার আলাদা কোন ফযীলত আছে কি?

প্রথম সন্তান হওয়ার আলাদা কোন ফযীলত আছে কি?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম ।
আমার একটি মেয়ে  সম্তান হয়েছে । আলহামদুলিল্লাহ ।
সবাই বলে যে – “প্রথম সন্তান মেয়ে হলে ভাগ্যবান” । উক্তিটি কি সঠিক ?
বিস্তারিত জানালে খুশি হব ।

আহালে হক মিডিয়ার প্রচার ও  প্রসার এর জন্য অনেক দুয়া ও শুভ কামনা রইল ।

মোহাম্মদ ফারুক
সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ।
বাসা : খিলক্ষেত , তালের টেক,
ঢাকা – ১২২৯ । 

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

পবিত্র কুরআনে কন্যা সন্তান জন্ম হওয়াকে সুসংবাদ বলে ঘোষণা দেয়া হয়েছে। আল্লাহ রাব্বুল আলামীন যেটিকে সুসংবাদ বলে স্বীকৃতি দিয়েছেন। তা প্রাপ্ত হওয়াতো অবশ্যই ভাগ্যবানের নিদর্শন বৈ কিছু নয়।

তবে প্রথম সন্তান কন্যা হওয়ার আলাদা ফযীলত আছে বলে কোন বিশুদ্ধ বর্ণনা দৃষ্টিগোচর হয়নি।

وَإِذَا بُشِّرَ أَحَدُهُمْ بِالْأُنْثَى ظَلَّ وَجْهُهُ مُسْوَدًّا وَهُوَ كَظِيمٌ l يَتَوَارَى مِنَ الْقَوْمِ مِنْ سُوءِ مَا بُشِّرَ بِهِ أَيُمْسِكُهُ عَلَى هُونٍ أَمْ يَدُسُّهُ فِي التُّرَابِ أَلَا سَاءَ مَا يَحْكُمُونَ

তাদের কাউকে যখন কন্যা সন্তানের ‘সুসংবাদ’ দেয়া হয় তখন তার চেহারা মলিন হয়ে যায় এবং সে অসহনীয়

মনস্তাপে ক্লিষ্ট হয়। সে এ সুসংবাদকে খারাপ মনে করে নিজ সম্প্রদায় থেকে লুকিয়ে বেড়ায় (এবং চিন্তা করে ) হীনতা স্বীকার করে তাকে নিজের কাছে রেখে দেবে,নাকি মাটিতে পুঁতে ফেলবে। কত নিকৃষ্ট ছিল তাদের সিদ্ধান্ত। (সূরা নাহল,আয়াত : ৫৮-৫৯)

হাদীসের মাঝে কন্যা সন্তান লালন পালনের অনেক ফযীলত বর্ণিত হয়েছে। যেমন-

হযরত আম্মাজান আয়শা রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেনঃ

مَنِ ابْتُلِيَ مِنْ هَذِهِ البَنَاتِ بِشَيْءٍ كُنَّ لَهُ سِتْرًا مِنَ النَّارِ

যাকে এরূপ কন্যা সন্তানের ব্যাপারে পরীক্ষা করা হয়, সে কন্যা সন্তান তার জন্য জাহান্নামের আগুন হতে পর্দা হবে। [বুখারী, হাদীস নং-১৪১৮]

قال القرطبي – رحمه الله -: قوله – صلَّى الله عليه وسلَّم – ((بشيءٍ من البنات)): يُفيد بعمومه، أنَّ السِّتْر من النار يحصل بالإحسان إلى واحدة مِن البنات.

عَنِ ابْنِ عَبَّاسٍ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «مَا مِنْ رَجُلٍ تُدْرِكُ لَهُ ابْنَتَانِ، فَيُحْسِنُ إِلَيْهِمَا مَا صَحِبَتَاهُ – أَوْ صَحِبَهُمَا – إِلَّا أَدْخَلَتَاهُ الْجَنَّةَ

হযরত আব্বাস রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন,  কোন ব্যক্তির দু’টি কন্যা সন্তান থাকলে, সে তাদের সাথে উত্তম ব্যবহার করলে যতদিন একত্রে বসবাস করবে, তারা তাকে জান্নাতে প্রবেশ করাবে। [সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস নং-৬৩৭০, মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং-২১০৫, ৩৪১৪]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

মুহাদ্দিস-জামিয়া উবাদা ইবনুল জাররাহ, ভাটারা ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

         

Print Friendly, PDF & Email

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

ঈদের রাতে অসুস্থ্য কুরবানীর পশু কুরবানীর নিয়তে জবাই করলে কুরবানী হবে কি?

প্রশ্ন আমার প্রশ্ন হল, কুরবানীর জন্য ক্রয় করা একটি পশু ঈদের আগের দিন রাতে হঠাৎ …