হোম / প্রশ্নোত্তর / ঢাকায় বাসা নিয়ে অবস্থানকারী ব্যক্তি গ্রামের বাড়িতে গেলে কি মুসাফির হবে?

ঢাকায় বাসা নিয়ে অবস্থানকারী ব্যক্তি গ্রামের বাড়িতে গেলে কি মুসাফির হবে?

প্রশ্ন:

From: Shamim Ahmed
Subject: Namaz
Country : Bangladesh
Mobile :
Message Body:
আমি আমার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঢাকায় থাকি। আমার বাসা থেকে আমার গ্রামের বাড়ীর দূরত্ব প্রায় ৫৫কি.মি.।

মাঝে মাঝে বাড়ীতে যাই দু’এক দিনের জন্য মা-‎বাবার কাছে। এমতাবস্থায় আমাকে কি গ্রামের বাড়ীতে মুসাফির হিসেবে কসর নামায আদায় করতে হবে। কখন কসর নামায আদায় করতে হয় বিস্তারিত ‎জানিয়ে বাধীত করবেন।‎

জবাব:

بسم الله الرحمن الرحيم

আপনার গ্রামের বাড়ি আপনার নিজের বাড়িই আপনার আসল বাড়ি। ঢাকায় কেবল আপনি বাসা ভাড়া নিয়ে অবস্থান করছেন। সুতরাং এটি আপনার স্থায়ী নিবাস নয়। সুতরাং আপনি গ্রামের বাড়িতে গেলে মুসাফির হবেন না। বরং আপনি মুকিমই থাকবেন। তাই সেখানে গেলে আপনাকে পূর্ণাঙ্গ নামাযই পড়তে হবে।

ব্যক্তি নিজে স্থায়ী নিবাসে গেলে কখনো মুসাফির হয়না। স্থায়ী নিবাস বলে এমন স্থানকে-“যেখানে ব্যক্তির বসবাসের জন্য স্থায়ী গৃহ থাকে, স্ত্রী সন্তান নিয়ে যেখানে সর্বদার জন্য থাকার নিবাস হয়”।

৮৮ কিলোমিটার হল সফরের দূরত্ব। এর কম নয়। সুতরাং কেউ যদি ৮৮ কিলোমিটার দূরত্বের সফরের নিয়তে বের হয় কেবল সেই ব্যক্তি কসর পড়তে পার। এরচে’ কম দূরত্বের সফরের জন্য কসর পড়া জায়েজ নয়।

فى رد المحتار-(الوطن الاصلى يبطل بمثله) ( قوله إذا لم يبق له بالأول أهل ) أي وإن بقي له فيه عقار قال في النهر : ولو نقل أهله ومتاعه وله دور في البلد لا تبقى وطنا له وقيل تبقى كذا في المحيط وغيره (رد المحتار-كتاب الصلاة، باب صلاة المسافر، مطلب في الوطن الأصلي ووطن الإقامة-2/614)

سنن أبى داود –صلاة السفر باب متى يقصر المسافر (1 / 465)حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ بَشَّارٍ حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ جَعْفَرٍ حَدَّثَنَا شُعْبَةُ عَنْ يَحْيَى بْنِ يَزِيدَ الْهُنَائِىِّ قَالَ سَأَلْتُ أَنَسَ بْنَ مَالِكٍ عَنْ قَصْرِ الصَّلاَةِ فَقَالَ أَنَسٌ كَانَ رَسُولُ اللَّهِ -صلى الله عليه وسلم- إِذَا خَرَجَ مَسِيرَةَ ثَلاَثَةِ أَمْيَالٍ أَوْ ثَلاَثَةِ فَرَاسِخَ – شُعْبَةُ شَكَّ – يُصَلِّى رَكْعَتَيْنِ.

প্রামান্য গ্রন্থাবলী:

১. ফাতওয়ায়ে শামী-২/৬১৪

২. তাবয়ীনুল হাকায়েক-১/৫১৭

৩. আল বাহরুর রায়েক-২/২৩৬

৪. খাইরুল ফাতওয়া-২/৬৮২-৬৮৩

৫. আহসানুল ফাতওয়া-৪/৭৫-৭৬

৬. সুনানে আবু দাউদ-১/৬১৪

 

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

 

Print Friendly, PDF & Email

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

তালাকের আবেদনের প্রেক্ষিতে “আরেকবার বললে যা বলছো তা’ই হবে” বলার দ্বারা তালাক হয় কি?

প্রশ্ন বরাবর, মুহতামিম সাহেব, আসসালামু আলাইকুম। সম্মনিত মুফতি সাহেব। যদি স্বামী স্ত্রী ঝগড়ার এক পর্যায়ে …